1. azqlgjgesKt@gmail.com : Stabrovpealk :
  2. test47018929@email.imailfree.cc : test47018929 :
  3. multicare.net@gmail.com : সংবাদ শরীয়তপুর :
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৮:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বৃষ্টির জন্য ডামুড্যায় বিশেষ নামাজ আদায় শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে জমকালো আয়োজনে উদ্বোধন হলো বিজয় মঞ্চ  ককটেলের আঘাতে যুবক হ*ত্যা*র অভিযোগ, বিচারের দাবিতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন কবি হাসনা হেনা’র কবিতা “হতে পারবো বীর” জীবনতরী মুক্ত স্কাউট গ্রুপের স্কাউট ওন ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিলে বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন সার্বভৌম: এনামুল হক শামীম শরীয়তপুরে আতাউর রহমান খান ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের উদ্যোগে রিকশা ও ভ্যান বিতরণ কে এই ইঞ্জিনিয়ার ওয়াছেল কবির গুলফাম বকাউল সরকার গ্রামকে শহরে রূপান্তরের কাজ করছেন : এনামুল হক শামীম বিঝারী উপসী তারাপ্রসন্ন উচ্চ বিদ্যালয় দরিদ্র  ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তিপ্রদান

কথা দিয়ে কথা রাখলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কাফী বিন কবির

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২০ জুন, ২০২৩
  • ২০০ বার পড়া হয়েছে

নয়ন দাস স্টাফ রিপোর্টার,
গত শুক্রবার (১৬ জুন) শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার ইউএনও কাফী বিন কবির দাপ্তরিক কাজে এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে জরাজীর্ণ ঘরে ষাটোর্ধ জাহানারা বেগমকে দেখে তার ঘর নতুনভাবে তৈরি করে দেয়ার কথা দিয়েছিলেন। আজ মঙ্গলবার (২০ জুন) সেই বৃদ্ধার হাতে নতুন দুই বান (১৬ পিস) টিন ও টিন লাগানোর মজুরি বাবদ নগদ ৬০০০ টাকা তুলে দেন ইউএনও কাফী বিন কবির। কথা দেয়ার মাত্র চার দিনের মধ্যে ঘর ঠিক করতে পারলো অসহায় জাহানারা বেগম (৬২)।

জাহানারা বেগম জানান, ঘর ঠিক করতে পারবো সেটা স্যারের কথা শুনে বুঝে ছিলাম কিন্তু এতো তারাতাড়ি টিন ও টাকা পাবো তা স্বপ্নেও ভাবিনি। ইউএনও স্যার নিজে আমার বাড়িতে এসে এগুলো দিয়ে গেলো এবং ঈদের আগে ঈদ সামগ্রী দেয়ার জন্য ভোটার আইডি নিলো। ইউএনও স্যার মানুষ নয়, ফেরেস্তা।

উপজেলা পিআইও আমিনুল ইসলাম বলেন, ইউএনও স্যার তাগিদ দিয়ে জাহানারা বেগমসহ ১৮ জনের ঘর মেরামতের টিন ও নগদ টাকা বরাদ্দ করেছেন। এলাকা ঘুরে ঘুরে তিনি উপযুক্ত ব্যক্তি বাছাই করেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুজন দাশ গুপ্ত বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে সেবা দেয়ার মাধ্যমে ইউএনও স্যার সাধারণ মানুষের মাঝে প্রশাসনের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কাফী বিন কবির বলেন, সামনে ঝড় বৃষ্টি বাড়তে পারে, বৃদ্ধার পক্ষে এই জরাজীর্ণ ঘরে থাকা প্রায় অসম্ভব। তাই জেলা প্রশাসক স্যারের সাথে ফোনে কথা বলে দ্রুত বরাদ্দ এনেছি। জেলা প্রশাসক স্যারের অনুপ্রেরণা ছাড়া এটা সম্ভব হতোনা। এই সকল কাজে আমার আদর্শ হলো শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক জনাব মো: পারভেজ হাসান স্যার।

এই সময় আরো ৮ টি পরিবারের মাঝে টিন ও নগদ অর্থ তুলে দেন গোসাইরহাটের ইউএনও কাফী বিন কবির।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

পুরাতন সংবাদ পড়ুন

বৃহ শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট